ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়তে বেশি গুরুত্ব দিতে যেসব বিষয়গুলির উপর

0 41

ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়ে তোলার অনেকের স্বপ্ন থাকে  । তবে ভাল প্রিপারেশন ও পড়াশোনায় সঠিক দিক নির্দেশনার অভাবে অনেকের স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ), ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ, অর্থনীতি বিভাগ ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) এর উপর মূলত ব্যাংক জবের প্রশ্নপত্র প্রণয়নের দায়িত্ব থাকে। সুতরাং ব্যাংক জবের ক্ষেত্রে পূর্ববর্তী প্রশ্ন থেকে ধারণা নিতে হবে কোন কোন বিষয় থেকে প্রশ্ন আসে সে সকল বিষয়ের উপর প্রস্তুতি নিতে হবে। আপনার প্রস্তুতি যদি ভাল থাকে তাহলে পরীক্ষা ভাল হবে আর পরীক্ষা ভাল হলে চাকরিও পাওয়া যাবে। এভাবে এভাবে আপনিও চাইলে সহজেই  ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।  চলুন জেনে নিই ব্যাংক জব এর জন্য কি কি পড়তে হবেঃ

ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়তে অবশ্য পরীক্ষার ধরন জেনে নিন

ব্যাংকার্স রিক্রুটমেন্ট পরীক্ষাগুলোতে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকের প্রশ্নে কিছুটা ভিন্নতা থাকলেও সাধারণত প্রশ্নের ধরন একই ধরনের হয়ে থাকে। নিয়োগ পরীক্ষায় সাধারণত ১০০ নম্বরের প্রশ্ন হয়। প্রায় সব ব্যাংকেই এমসিকিউ(MCQ) পরীক্ষার পর লিখিত পরীক্ষা হয়। এমসিকিউ(MCQ) অংশের প্রশ্ন হয় সাধারণত বাংলা, ইংরেজি, গণিত, সাধারণ জ্ঞান, দৈনন্দিন বিজ্ঞান ও কম্পিউটার, অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটি, পাজলস এবং ডাটা সাফিশিয়েন্সি অংশ থেকে। আর লিখিত বা বর্ণনামূলক পরীক্ষায় প্রশ্ন থাকে ইংরেজি গণিত ও অ্যানালিটিক্যাল অ্যাবিলিটি অংশ থেকে। তবে বিভিন্ন ইসলামী ব্যাংকের প্রশ্ন একটু ব্যতিক্রম হয়ে থাকে। এছাড়া ইসলামী সংস্কৃতি ও অর্থব্যবস্থার ওপর বেশ কিছু প্রশ্ন থাকে। সরকারি এবং ইসলামী ব্যাংক ছাড়া অন্য ব্যাংকগুলোর প্রশ্ন সাধারণত ইংরেজিতে করা হয়। বিভিন্ন ব্যাংকের পরীক্ষার সময় এবং নম্বর বণ্টনের ক্ষেত্রে ভিন্নতা দেখা যায়।

ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়তে বেশি গুরুত্ব দিতে যেসব বিষয়গুলির উপর

বাংলার প্রস্তুতি:

বাংলা বিষয়ক প্রশ্নগুলো সাধারণত ব্যাকরণ এবং সাহিত্য থেকে করা হয়। ব্যাকরণের ভাষা, বর্ণ, শব্দ, বাক্য, সন্ধি-বিচ্ছেদ, লিঙ্গান্তর, বচন, বানান শুদ্ধি, কারক ও বিভক্তি, সমাস, পদ, প্রকৃতি-প্রত্যয়, বাগধারা, এককথায় প্রকাশ, অনুবাদ, অর্থনীতি বিষয়ক প্রবন্ধ প্রভৃতি থেকে প্রশ্ন হয়ে থাকে। এছাড়া বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের উৎপত্তি এবং বিকাশ, বিখ্যাত কবি-সাহিত্যিকদের জীবনী ও কর্ম, সাহিত্যের উল্লেখযোগ্য ঘটনা, চরিত্র ও উক্তি, বিখ্যাত পত্রপত্রিকার সম্পাদক প্রভৃতি বিষয়েও প্রশ্ন করা হয়।

ইংরেজি প্রস্তুতি:

চাকরি প্রার্থীরা নিয়োগ পরীক্ষায় ইংরেজিতে সবচেয়ে বেশি ভুল করে বলে এ বিষয়ের ওপর বিশেষ প্রস্তুতি থাকতে হবে। ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়তে বিশেষ করে Letter, word, Sentence, Parts of speech, Voice, Narration, Phrase and Idioms, Correction, Tense, Number, Gender, Person, Completing sentence, Correct Spelling, Synonym, Antonym প্রভৃতি ভালোভাবে শিখতে হবে। এছাড়া বিখ্যাত সাহিত্যকর্ম ও রচয়িতা, কবি-সাহিত্যিকদের জীবনী ও সৃষ্টিকর্ম, বিভিন্ন কবিতা, গল্প, উপন্যাস ও নাটকের চরিত্র ও বিশেষ উক্তিগুলো সম্পর্কেও ধারণা রাখতে হবে।

গণিতের প্রস্তুতি:

অনেকের নিয়োগ পরীক্ষাগুলোতে গণিত ভীতি কাজ করে। নিয়মিত অনুশীলন করলে এই ভয় ভীতি সহজে কাটানো সম্ভব। ব্যাংকার্স রিক্রুটমেন্ট পরীক্ষায় গণিত অংশে ভালো করতে অবশ্যই গড়, গতি, অনুপাত, শতকরা, পরিমাপ ও একক, সুদকষা, লাভ-ক্ষতি এবং পরিমিতির জটিল সমস্যাগুলোর সমাধান ভালোভাবে শিখতে হবে। পাশাপাশি লসাগু-গসাগু, ঐকিক নিয়ম, বর্গ, সরল, মান নির্ণয়, সাধারণ চার নিয়ম, সামান্তধারা নির্ণয়, সমাধান এবং জ্যামিতিক সূত্র ও সংজ্ঞাগুলো শিখতে হবে।

সাধারণ জ্ঞান/ বাংলাদেশ ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী:

সাধারণ জ্ঞান অংশে প্রশ্ন করা হয় বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ে। বাংলাদেশ বিষয়ক প্রশ্নগুলোর উত্তর দিতে ভৌগোলিক বিষয়াবলি, আয়তন, সীমানা, নদ-নদী, কৃষিজ, বনজ, প্রাণিজ ও খনিজ সম্পদ, বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাস ও মুক্তিযুদ্ধ, শিল্প ও বাণিজ্য, সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান, পুরস্কার ও সম্মাননা, অর্থনৈতিক ব্যবস্থা, নৃতাত্তি্বক পরিচয় এবং সাম্প্রতিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাবলি জানতে হবে। এছাড়া সাম্প্রতিক আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাবলি, বিশ্ব রাজনীতি, মহাদেশ, দেশ ও জাতি, সীমারেখা ও স্থান, আন্তর্জাতিক সংস্থা ও সংগঠন, চুক্তি ও সনদ, পুরস্কার ও সম্মাননা, বিশ্ব অর্থনীতি, শিল্প ও বাণিজ্য, খেলাধুলা, বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব, বিখ্যাত স্থান ও স্থাপনা বিষয়ে জ্ঞান রাখতে হবে।

ব্যাংকিং ক্যারিয়ার – দৈনন্দিন বিজ্ঞান ও কম্পিউটার:

ব্যাংকার্স রিক্রুটমেন্ট পরীক্ষায় বেশ কিছু প্রশ্ন করা হয় দৈনন্দিন বিজ্ঞান ও কম্পিউটার বিষয়ে। প্রশ্নগুলোর উত্তর দিতে বিজ্ঞানের বিভিন্ন আবিষ্কার ও আবিষ্কারক, দৈনন্দিন বিজ্ঞান, তাপ, আলো, বিদ্যুৎ, শব্দ, চুম্বক, মানবদেহ, উদ্ভিদ ও প্রাণিবিদ্যা, খাদ্য ও পুষ্টি, চিকিৎসাবিজ্ঞান, মহাকাশবিজ্ঞান, পরিবেশবিজ্ঞান, ভূগোল, প্রাকৃতিক ভূগোল, খনিজ ও মৃত্তিকা, বায়ুমণ্ডল, যন্ত্রবিদ্যা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি, ইলেকট্রনিক্স এবং কম্পিউটার সম্পর্কিত তথ্যগুলো জানা থাকতে হবে।

ব্যাংকিং ক্যারিয়ার – আইকিউ ও অ্যানালিটিকাল স্কিল:

ব্যাংকার্স রিক্রুটমেন্ট পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর বুদ্ধিমত্তা, বিশ্লেষণী ক্ষমতা যাচাইয়ের জন্য বেশ কিছু প্রশ্ন করা হয়। নিজের বুদ্ধিমত্তা ও বিশ্লেষণী ক্ষমতা প্রয়োগ করে বিষয়গুলোর উত্তর করতে হবে। বিষয়টি বেশ কঠিন। তবে অফিসিয়াল জিম্যাট, ব্যারনস জিম্যাট কিংবা আইকিউ টেস্টের যেকোনো বই দেখে নিয়মিত চর্চা করলে যেকোন পরীক্ষার্থীর জন্য প্রশ্নগুলোর উত্তর দেওয়া সহজ হবে।

আজকের পোস্টটি পড়ে ব্যাংকিং ক্যারিয়ার গড়তে বেশি গুরুত্ব দিতে যেসব বিষয়গুলির উপর তা জানা হয়ে গেলো। তাই আর দেরী না করে আজ থেকেই আপনার প্রস্তুতি নেওয়া শুরু করে দিন।

কার্টেসি: ডেইলি মিরর

আরও গুরুত্বপূর্ণ বিজ্ঞপ্তিসমূহ পড়তে পারেন:

Leave a comment

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More